তুমি যে আছ তাই, আমি পথে হেঁটে যাই

মানসিক শক্তি যে কি জিনিশ, তার একটা সত্যিকারের প্রমাণ পেলাম গতকাল। আর তার সাথে যদি সম্মিলিত প্রয়াস থাকে তাহলে সেই শক্তি বেড়ে যায় কয়েক গুণ। এসব কথা বলার কারণ হল, গতকাল সকালে আমরা কুয়েটের প্রায় শ’পাঁচেক ছাত্রছাত্রী কুয়েট থেকে হেঁটে খুলনার শিববাড়ি গিয়েছি রাজাকার বিরোধি আন্দোলনে যোগ দিতে। পথ প্রায় ১৩ কিলোমিটার। তার চেয়েও বড় কথা হল মাথার উপর ছিল কড়া রোদ।

১৩ তারিখে শোনামাত্রই সিধান্ত নিয়েছিলাম যাব। প্রথমে ভেবেছিলাম, খুব বেশি ছাত্র হয়ত আগ্রহ দেখাবে না। আর যারা শুরু করবে, তারাও হয়ত মাঝপথে গিয়ে হারিয়ে যাবে। পরদিন সকাল বেলাতেও সেই রকম আভাসই পেয়েছিলাম। কিন্তু আমার ধারণা ভুল প্রমাণ করে দিয়ে আশাতীত ছাত্রছাত্রী এসে জমা হল অডিটোরিয়াম এর সামনে। ‘জয় বাংলা, জয় জনতা’ স্লোগান দিয়ে শুরু হল যাত্রা।

পুরো পথ জুড়ে চলল হরেক রকম স্লোগান, অনেকের চোঁখে-মুখে ক্লান্তির ছায়া। কিন্তু কেউ দমবার পাত্র নয়। কারণ শারীরিক ক্লান্তি হয়ত এসেছে, কিন্তু মানসিক ক্লান্তি আসার কোন উপায় নেই। সাথে কিছু মেয়েদের দেখলাম। আমার ধারণা ছিল, এরা মাঝপথে গিয়ে হারিয়ে যাবে নিশ্চিত। কিন্তু ওরা আবার আমাকে ভুল প্রমাণিত করল। বুঝলাম ৭১ এ এই মানসিক শক্তিই বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছে।

যখন শিববাড়ি পৌঁছলাম তখন সবার চোখে-মুখে অন্যরকম এক প্রশান্তি। হ্যাঁ, আমরা চাইলে সব পারি।

গতকাল ছিল ১৪ ফেব্রুয়ারি, বিশ্ব ভালবাসা দিবস। ভালবাসার এই দিনে দেশকে এই সামান্য ভালবাসা দিতে পারা আমার জন্য এক অনন্য অনুভুতি।

আজ ১৫ ফেব্রুয়ারি। সরস্বতী পূজা। এবার কুয়েটেই পূজা করছি।

Advertisements

One thought on “তুমি যে আছ তাই, আমি পথে হেঁটে যাই

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s