দেখা হবে বন্ধু

গতকাল কুয়েট লাইফের শেষ সেন্ট্রাল ভাইভা হয়ে গেল। আস্তে আস্তে সবই শেষ হয়ে যাচ্ছে। এবার প্রস্তুতি ছিল সবচেয়ে খারাপ কিন্তু মনের ভেতর কোনো টেনশন কাজ করছিল না। আর ভাইভা বোর্ডেও ছিল সব বাঘা বাঘা স্যার। অনেক কেই রিপিট দিয়েছেন। কিন্তু কোনো এক অজানা কারণে বেশিরভাগ প্রশ্নের উত্তর না দিতে পারা সত্ত্বেও আমি রিপিট পেলাম না।

গত ৭ তারিখে ছিল ০৮ এর র‍্যাগ। এবার সেন্ট্রালী র‍্যাগের আয়োজন করা হয়েছিল। তাই পুরো ক্যাম্পাস ছিল উৎসবমুখর। সকাল (আসলে আগের রাত) থেকেই ভুভুজেলার শব্দে মেতে ছিল প্রতিটি হল। আর বিকেলে রঙে রঙে রাঙ্গিয়ে উঠেছিল সবার মন। এর আগে দুপুরে ট্রাকে করে ঘুরে আসলাম খুলনা শহর থেকে। প্রতিটি মুহুর্ত যেন স্বপ্নের মত কেটে গেল।

দিনশেষে গায়ের রঙ তুলতে গিয়ে সে এক বিরাট কান্ড-কারখানা। কেউ কেউ সার্ফ এক্সেল দিয়ে পুরো শরীর সাফ করল। তবে বেশীর ভাগই কেবল রঙ বিহীন মুখমণ্ডল নিয়েই খুশি থাকল। এই লেখা যখন লিখছি তখনো আমার হাত, পা আর পিঠে রঙ লেগে আছে।

তবুও দিন শেষে কেমন যেন ফাঁকাফাঁকা লাগছিল নিজেকে। সব শেষ হয়ে যাচ্ছে এই কথা মনে হলেই বুকটা মোচর দিয়ে উঠছে।

সন্ধ্যায় কালচারাল প্রোগ্রাম হওয়ার কথা ছিল কিন্তু ক্লান্তির কারণে একদিন পিছিয়ে দেয়া হল।

যা হোক পরের দিন, কালচারাল প্রোগ্রাম শুরু হতে হতে নয়টা বেজে গেল। ম্যাড়ম্যাড়ে ভাবে শুরু হলেও একটু পরেই জমে উঠল আর উঠতেই থাকল। টকিং টমের সাথে শোভন কায়সারের অভিনয় ছিল সুপার ডুপার হিট। আর সং ফর অ্যানি ওয়ান এর স্লাইড ছিল পুরাই অস্থির। ১২ টায় যখন অনুষ্ঠান শেষ হল, তখন পুরো অডিতে একটাই আওয়াজ  2k8 Rocks!!!!!!!!

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s